কাঁচি ওয়েব সিরিজে।।

কোন কিছুই বাধা নেই ওয়েব সিরিজে, চূড়ান্ত উদ্দমতা থেকে নগ্নতা সবাই বিরাজমান।কারণ এখানে থাবা নেই সেন্সরের,এখনো পর্যন্ত আমরা এটাই জানি।আর এইসব এর উপর ভিত্তি করে সারা দেশজুড়ে ওয়েব সিরিজ এর নামে যা দেখানো হচ্ছে তা কোন পূর্ণদৈর্ঘ্যের সিনেমায় বা সিরিয়ালে থাকে না।
তবে এইভাবে আর কতদিন ?সত্যিই কি এর কোনো বেড়াজাল নেই?আর বর্তমানে এই সকল প্রশ্নের উত্তরে সরব হয়েছে বোম্বের হাইকোর্টের নাগপুর বেঞ্চ।বিচারপতি ভুষণ ধর্মাধিকারী ও মুরলীধর গীতকার এ বিষয়ে প্রবল আপত্তি প্রকাশ করেছে।
একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে আইনজীবী দিব্যা ঘন্টিয়ার সম্প্রতি ওয়েব সিরিজে হিংসা ও যৌনতা প্রদর্শনের বিষয়ে একটি জনস্বার্থ মামলা করেছে।তার বক্তব্য অনুযায়ী নেটফ্লিক্স অ্যামাজন প্রাইম প্রভৃতিতে যে ওয়েব সিরিজ দেখানো হয় তাতে পর্নোগ্রাফির কন্টেন আছে।এবং এগুলোতে যে অশালীন ভাষা ব্যবহার করা হয় তা ভারতীয় সংস্কৃতির নৈতিকতা কে লংঘন করে।এবং তিনি এও জানান কিছু কিছু ক্ষেত্রে এই ওয়েব সিরিজ বিভিন্ন ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করে।এবং যে দেশে টিভিতে বিভিন্ন সিরিয়ালের ও সিনেমাতে নজরদারি করার ব্যবস্থা আছে ওয়েব সিরিজে কেন অবাধ ছাড়?
এই জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে বিচারপতি জানিয়েছেন এ বিষয়ে একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতি থাকা দরকার। যে কোন ওয়েব সিরিজ সম্প্রচার আগে তা স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা একান্ত কাম্য।এবং ওয়েব প্লাটফর্মে সেন্সরের ব্যবস্থা চালু নিয়ে অনেকেই সরব হয়েছে।

    [যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না।]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *