‘অনেকেই চেষ্টা করেছিল আমার আর সুশান্তের বন্ধুত্বে চিড় ধরাতে’, মুখ খুললেন সঞ্জনা

আগামী ২৪ শে জুলাই মুক্তি পেতে চলেছে সুশান্ত।সিং রাজপুত অভিনীত শেষ সিনেমা মুকেশ ছাবরা পরিচালিত ছবি ‘দিল বেচারা’ যেখানে ফের একবার শেষবারের মতো দেখা যাবে সুশান্তকে। তবে এই ছবির শ্যুটিং এর সময়ে রটেছিল গুজব। অভিনেত্রী সঞ্জনা সিংহীর সঙ্গে নাকি বেশিই আন্তরিক এবং ঘনিষ্ঠ হয়ে পড়েছিলেন সুশান্ত যা পছন্দ করেননি অভিনেত্রী। এমন একটা খবর সামনে এসেছিল সেই সময়ে।

আজ সুশান্তের মৃত্যুর এক মাস পরে সেই বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন সঞ্জনা। তিনি একটি সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘ওই ঘটনার পর সবাই ভেবেছিলেন যে একমাত্র সুশান্তই সমস্যায় পড়েছিলেন। কিন্তু জেনে রাখুন সমস্যায় পড়েছিলাম আমিও। আমি জানতাম ও আমায় কী বোঝাতে চেয়েছি আর আমি ওকে কি বলতে চেয়েছিলাম। শুধু আমরাই জানি সত্যিটা কি। আমরা যখন শ্যুটিং করছিলাম তখন এরকম বেশ কিছু কুরুচিকর খবর প্রকাশিত হয়। সুশান্ত আমায় বলেছিল এসবে কান না দিতে। বিশ্বাস করুন, যাঁরা এরকম কুরুচিপূর্ণ খবর লেখেন তাঁদের আমি কোনও সম্মান করি না।

অনেকেই চেষ্টা করেছিল আমার আর সুশান্তের বন্ধুত্বে চিড় ধরাতে। কিন্তু আমাদের বন্ধুত্বে এর কোনও প্রভাব পড়েনি। এখনও আমাদের বন্ধুত্ব একইরকম আছে। সেই সময় সুশান্ত আমাকে বলেছিল আমাদের যে কথাগুলো হয়েছে যেখান থেকে এত সমস্যার সূত্রপাত সেই চ্যাট সবার সামনে তুলে ধরি? আমি বলেছিলাম হ্যাঁ করো। কিন্তু তারপরও একদল লোক ওকে ভুল বুঝেছিল। একটা মেয়ে যখন বলছে কিছু হয়নি এরপরও তার ব্যখ্যা গ্রহণযোগ্য হচ্ছে না। আমাকে বলা হয় আমাদের সম্পর্ক নিয়ে প্রকাশ্যে বলতে। ভাবুন কীরকম সমাজে বাস করছি আমরা। একটা ছেলের আর মেয়ের মধ্যে যে ভালো বন্ধুত্ব হতে পারে এটা আমাদের সমাজ বিশ্বাস করে না। ভাবে সিনেমায় প্রেম মানে বাস্তবেও প্রেমিক-প্রেমিকা। আমি সত্যি তখন খুব ছোট ছিলাম। তাই এগুলো এত দক্ষ ভাবে সামলাতে পারিনি। কিন্তু এই সমাজের উপর আমার আর কোনও বিশ্বাস নেই’

গোটা ঘটনা যে নিছকই গুজব তা জানিয়ে সঞ্জনা বলেন, ‘এসব রটনা। সেটে কোনও রকম কিছু হয়নি। যদি হতো আমি প্যারিসে দিল বেচারার শ্যুটিং করতে যেতাম না। কিংবা ডাবিং করতাম না। মাঝপথ থেকেই এই ছবি ছেড়ে আমি বেরিয়ে আসতাম। দিল বেচারা আমাকে অনেক ভালোবাসা দিয়েছে। একটা ভালো সিনেমা দাঁড় করাতে আমরা অনেক খেটেছি। তাই এরকম কোনও কিছুই হয়নি’।

আরও পড়ুন:বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি, ভাইরাল শাহরুখ-কন্যা সুহানার ভিডিয়ো

[যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না।]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *