আপনার ফোনে রয়েছে ব্যান হয়ে যাওয়া অ্যাপগুলি, তাহলে কি ব্যবহার করা যাবে ? জানুন

ভারত সরকার চিনের ৫৯ টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করে দিয়েছে ৷ যাতে শেয়ারইট(SHAREIT), হেলো (Helo), টিকটক (Tiktok)-র মতো জনপ্রিয় অ্যাপ রয়েছে ৷ এখন বড় প্রশ্ন যে, যাঁদের ফোনে এই অ্যাপগুলি ইতিমধ্যই রয়েছে তাঁরা কী এটি ব্যবহার করতে পারবেন ৷ টিকটকের মতো অ্যাপ বেশ কিছু মোবাইলে প্রথম থেকেই ইনস্টল হয়ে থাকে তাদের ফোনে কী টিকটক কাজ করবে উঠছে এই প্রশ্নও৷

এই বিষয়ে অবশ্য এখনও স্পষ্ট কোনও রূপরেখা পাওয়া যায়নি ৷ এই মুহূর্তে ব্যবহারকারীরা নতুন করে iOS স্টোর থেকে আর এই অ্যাপগুলি ডাউনলোড করা যাবে না৷

বিভিন্ন অ্যাপের ক্ষেত্রে ডেভেলপাররা বিভিন্ন আপডেট দেন ৷ এই নিষিদ্ধ অ্যাপগুলির প্লে স্টোর থেকে আপডেট দেখালেও সেটা আর নিজের ফোনে ডাউনলোড করতে পারবেন না ৷ ফলে এক অর্থে এই অ্যাপ ফোনে থাকলে তা কার্যত বেকার হয়েই থাকবে৷ ভারতে এই অ্যাপগুলি ডেভালপারের কোনও সাপোর্ট পাবে না ৷

কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের বিষয়ে বিভিন্ন নেট পরিষেবা প্রদানকারী ও টেলিকম কোম্পানিদের জানানো হয়েছে ৷ তাদেরকে জানানো হয়েছে এই অ্যাপগুলির ক্ষেত্রে লিঙ্ক, ডেটা ট্রাফিক আটকে দেওয়ারও ব্যবস্থা করা হবে ৷

মানুষ নিজেদের কন্ট্যাক্ট নিয়েো চিন্তিত ৷ কারণ হেলো, টিকটক, লাইকের মতো অ্যাপে কোটি কোটি কন্ট্যাক্ট রয়েছে ৷ এই কন্ট্যাক্ট কী করে উদ্ধার করা যাবে সেটা নিয়ে থাকছে প্রশ্ন ৷ এতে প্রচুর ক্রিকেটার রয়েছেন এছাড়াও অনেকের আয়ের উৎস এই অ্যাপগুলি ৷ ফলে প্রশ্ন থাকছে নানা জায়গায় ৷

আরও পড়ুন : চিনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই আরও Spice-2000 বোমা কিনছে ভারত

[যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না।]

Debasish Sarkar

Editor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *