ক্রমাগত ধর্ষণের হুমকি, স্ক্রিনশট শেয়ার করে আইনি পথে হাঁটার হুঁশিয়ারি মহেশ কন্যার

গত এক মাস ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রমাগত ধর্ষণের হুমকি পাচ্ছেন মহেশ ভট্ট কন্যা শাহিন ভট্ট এবং আলিয়া ভট্ট। ইনস্টাগ্রামে সেই সব হুমকিরই কয়েকটি স্ক্রিনশট শেয়ার করে ক্ষোভ উগরে দিলেন শাহিন। প্রয়োজনে আইনি পথেও হাঁটবেন তিনি… সেই হুঁশিয়ারিও দিয়ে রাখলেন।

ঘটনার সূত্রপাত গত ১৪ জুনের পর থেকে। ১৪ জুন বান্দ্রায় নিজের ফ্ল্যাটে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হন অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুত। সুশান্তের মৃত্যুর সূত্র ধরে বলিউডের নেপোটিজম তত্ত্ব হঠাৎ করেই সামনে এসে যায়। আলিয়ার প্রতি কর্ণের পক্ষপাতিত্ব, সুশান্তের গার্লফ্রেন্ডের সঙ্গে মহেশ ভট্টের বিশেষ বন্ধুত্বের বিষয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন নেটাগরিকদের একাংশ।

এর পরেই ইনস্টাগ্রাম সহ সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় আলিয়া-কর্ণ-মহেশ সহ স্টারকিডদের উপর নেমে আসে জনতার ভার্চুয়াল আক্রমণ। আলিয়া এবং শাহিনকেও কদর্য ভাষায় আক্রমণ করা হয়, দেওয়া হয় ধর্ষণের হুমকিও।

আলিয়া চুপ করে থাকলেও, মুখ খুলেছেন শাহিন। তিনি লেখেন, “ভারতে প্রতি ১৫ মিনিটে একজন মহিলা ধর্ষিত হন। ৭০ শতাংশ মহিলা গার্হস্থ্য হিংসার শিকার। সেখানে আমাদের উপর এরকম আক্রমণে আপনি বিস্মিত? আমি নই।“

এখানেই থামেননি শাহিন। যাঁরা ওই সব মেসেজ পাঠাচ্ছেন তাঁদের উদ্দেশে শাহিনের বক্তব্য, “এর পরেও যদি এ রকম মেসেজ আমি পাই, তা হলে সবার আগে সেই ব্যক্তিকে ব্লক করে ইনস্টা কর্তৃপক্ষকে রিপোর্ট করব। প্রয়োজনে সেই ব্যক্তির নামও প্রকাশ্যে আনব। আইপি অ্যাড্রেস ট্র্যাক করা কিন্তু কঠিন কিছু নয়। আইনি পথে হাঁটব আমি।”

আরও পড়ুন: ঈশান খট্টরের সঙ্গে যৌনতায় মাতলেন তাব্বু, দেখুন ‘আ সুটেবল বয়’-এর ট্রেলার

[যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না।]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *