চার তরুণীর হাতে লুণ্ঠিত হয়েই এক ডজন নিরাপত্তারক্ষী বাড়িয়ে নেন সলমন!

নায়ক হিসেবে বরাবরই তরুণীদের হার্টথ্রব সলমন খান। কিন্তু জানেন কি, এক বার চার তরুণীর হাতে বিপর্যস্ত হয়েছিলেন সল্লু মিয়াঁ!

শুধু বিপর্যস্তই নন। শোনা যায়, ওই চার তরুণী তাঁর অনুরাগী সেজে এসে লুঠ করেছিলেন তাঁর দামি জিনিসপত্র। বান্দ্রার এক নাইট ক্লাবে নাকি এই ঘটনার মুখোমুখি হন সলমন খান।

প্রথমে নাকি চার তরুণী তাঁর সঙ্গে এসে আলাপ করেন। পরিচয় দেন, তাঁরা সলমন খানের বড় ভক্ত। তাঁরা একসঙ্গে গল্প করতে চান সলমনের সঙ্গে।

সুবেশা তরুণীদের আসল উদ্দেশ্য বুঝতে পারেননি সলমন। তিনি তাঁদের সঙ্গে কিছু ক্ষণ কথা বলেন।

সে সময় নাকি ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীরাও তাঁর কাছে ছিলেন না। চার তরুণী ভক্তের সঙ্গে কথা বলার সময় তাঁদের কাছে রাখার প্রয়োজন ছিল না বলেই মনে হয়েছিল সলমনের।

কিন্তু অভিযোগ, তিনি বিপদ বুঝতে পারেন তরুণীরা চলে যাওয়ার বেশ কিছু ক্ষণ পরে। টের পান, তাঁর ওয়ালেট, রোদচশমা এবং বিখ্যাত বজরঙ্গী ভাইজান লকেট খোয়া গিয়েছে।

যে সময় সলমন কথা বলছিলেন তরুণীদের সঙ্গে, সে সময় তাঁর ওই জিনিসগুলি কাছের একটি টেবিলে রাখা ছিল বলে জানা যায়। সেখান থেকেই ভক্তবেশী তরুণীরা সেগুলি হাতসাফাই করেন বলে অভিযোগ।

সলমনের নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁকে অভিযোগ জানাতে বলেন। কিন্তু সলমন পুলিশের কাছে কোনও অভিযোগ জানাননি। পরিবর্তে তিনি নিজের নিরাপত্তারক্ষী বাড়িয়ে দুই থেকে ১৪ করে দেন।

বছর পাঁচেক আগে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত এই খবর গুজব বলে উড়িয়ে দেন সলমনের বোন অর্পিতা। তাঁর দাবি, সলমন সে সময়ে নাইটক্লাবে যেতেন না। তিনি সঙ্গে ওয়ালেটও রাখেন না বলেই দাবি বোন অর্পিতার।

সলমন নিজেও কোনও দিন এ বিষয়ে মুখ খোলেননি। তবে বলিউডে জোর গুঞ্জন, এই ঘটনার পরেই ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষী সংখ্যা বাড়িয়ে দেন তিনি।

আরও পড়ুন :শেষ হল প্রথম পর্বের ট্রায়াল! ৩৭৫ জনের উপর প্রয়োগ করা হল ভারতের প্রথম করোনা টিকা Covaxin!

[যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *