জুলাইয়ে ছ’টি রাফাল বিমান আসছে বায়ুসেনার হাতে, অগস্টে প্রস্তুত হবে যুদ্ধের জন্য

লাদাখ-সংঘাতের আবহেই প্রথম রাফাল যুদ্ধবিমান আসতে চলেছে ভারতে। সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, জুলাই মাসের শেষে পূর্ণ অস্ত্রসম্ভার-সহ ছ’টি রাফাল বিমান ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে আসবে। সেগুলি হরিয়ানার অম্বালা বায়ুসেনা ঘাঁটির ‘গোল্ডেন অ্যারো (১৭ নম্বর) স্কোয়াড্রন’-এ অন্তর্ভুক্ত হবে। অগস্ট মাসের গোড়াতেই পুরোদস্তর যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবে ভারতীয় বিমানবাহিনীর ওই রাফাল বহর।

প্রকাশিত খবরে দাবি করা হয়েছে, আগামী ২৭ জুলাই ছ’টি রাফাল অম্বালায় পৌঁছবে। দক্ষিণ ফ্রান্সের ইস্টার কমিউন থেকে সেগুলিকে উড়িয়ে আনবেন ভারতীয় বায়ুসেনার পাইলটেরা। মাঝে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির আবুধাবির আফ ধাফরা এয়ারবেসে হবে সাময়িক যাত্রাবিরতি। প্রকাশিত খবরে দাবি, অত্যাধুনিক ‘এয়ার টু এয়ার’ ক্ষেপণাস্ত্র ম্যাটিওয় এবং ‘এয়ার লঞ্চ়়ড ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র স্ক্যাল্প-সহ ফ্রান্স থেকে উড়ে আসবে ছ’টি রাফাল। ফলে তাদের যুদ্ধ-প্রস্তুতির জন্য বেশি সময় লাগবে না।

ইউপিএ জমানায় ফ্রান্সের দাসো অ্যাভিশনের সঙ্গে ১২৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান কেনার বিষয়ে চুক্তি হয়েছিল। কিন্তু নরেন্দ্র মোদীর সরকারের আমলে ২০১৫ সালে সম্পাদিত নতুন চুক্তি অনুযায়ী ফ্রান্স থেকে ৩৬টি রাফাল কিনবে ভারত। গত ৮ অক্টোবর প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহের ফ্রান্স সফরের সময় দক্ষিণ ফ্রান্সে দাসো কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিক ভাবে ভারতের হাতে প্রথম রাফাল যুদ্ধবিমান হস্তান্তর করেছিল।

ভারতীয় বায়ুসেনার ফাইটার পাইলটদের একটি দল ইতিমধ্যেই ফ্রান্সে গিয়ে রাফাল যুদ্ববিমানের প্রশিক্ষণ নিয়েছে। বায়ুসেনার পরিকল্পনা রাফালের দু’টি স্কোয়াড্রন গড়া হবে। পশ্চিম সেক্টরের স্কোয়াড্রনটি থাকবে অম্বালায়। পূর্ব সেক্টরের স্কোয়াড্রনটি আলিপুরদুয়ার জেলার হাসিমারা বায়ুসেনা ঘাঁটিতে। লাদাখে চিন সেনার অনুপ্রবেশ এবং জম্মু ও কাশ্মীরের সাম্প্রতিক উত্তেজনার প্রেক্ষিতে ভারতীয় বায়ুসেনার রাফাল প্রাপ্তি নতুন মাত্রা আনবে বলে মনে করছেন প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের অনেকে।

আরও পড়ুন: পেছনে নীল জলরাশিকে রেখে উষ্ণ অবতারে ঝড় তুললেন অভিনেত্রী এসনায়া

[যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না।]

Debasish Sarkar

Editor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *