বলিউড কারোর বংশানুক্রমে পাওয়া সম্পত্তি নয়, কাউকে বয়কট করার অধিকার কে দিয়েছে?: শত্রুঘ্ন সিনহা

কঙ্গনা রানাওয়াতের পর এবার সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এবার করণ জোহরকে একহাত নিলেন শত্রুঘ্ন সিনহা। প্রশ্ন তোলেন, কীভাবে করণের শোতে এমন সব আলোচনা হতে পারে, যা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে এভাবে প্রভাব ফেলে? প্রাক্তন অভিনেতা তথা প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহা বলেন, কারোর অধিকার নেই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি থেকে কাউকে ‘বয়কট’ করার?

সাক্ষাৎকারে প্রাক্তন অভিনেতা, তথা প্রাক্তন সাংসদ অবশ্য সরাসরি করণ জোহর বা তাঁর শোয়ের নাম নেন নি। তিনি করণের শোটির কথা বোঝাতে ‘কফি উইথ অর্জুন’ উল্লেখ করেন। বলেন, ”আমাদের সময় কফি উইথ অর্জুনের মতো কোনও শো ছিল না। এগুলিতে যা আলোচনা হয়, তা পরিকল্পিত। আর এধরেন শো থেকেই বিভিন্ন কথা উঠে আসে য সমস্য়া তৈরি করে। এখন যার প্রসঙ্গেই আলোচনা হচ্ছে, তাঁরা সবাই এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি পরিবারের অংশ। তবে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি বংশানুক্রমে পাওয়া কারোর সম্পত্তি নয়। এখানে কারোর বলার অধিকার নেই, যে চলো এই ব্যক্তিকে বয়কট করা যাক।”

শত্রুঘ্ন সিনহা প্রশ্ন তোলেন, ”তুমি কে যে কাউকে রক্ষা করবে? তুমি কীভাবে এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছিলে? তুমি জীবনে কী করেছো?”

প্রসঙ্গত, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর বারবার আলোচনায় উঠে এসেছে করণ জোহরের শো ‘কফি উইথ করণ’ । যে শোতে বহু পর্বে জেনেশুনে সুশান্তকে অপমান করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। যেগুলির বেশকিছু ভিডিয়ো ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। আর তারপরই একাধিক জনের আক্রমণ, সমালোচনার মুখে পড়েন করণ জোহর। অভিযোগ উঠেছে, তারকা সন্তানদের কাজ দিতে, তারকা বানাতে বিশেষ উদ্যোগী হতেন করণ, আর তিনি ইচ্ছাকৃতভাবেই বহিরাগতদের অপদস্থ করার চেষ্টা করেন। এমনকি তিনি সুশান্তকে একপ্রকার বলিউড থেকে বয়কট করারও উদ্যোগ নিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

আরও পড়ুন:‘অনেকেই চেষ্টা করেছিল আমার আর সুশান্তের বন্ধুত্বে চিড় ধরাতে’, মুখ খুললেন সঞ্জনা

[যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না।]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *