ভেন্টিলেশনে দিতে দেরি, করোনা রোগীর মৃত্যুতে হাসপাতালের জরিমানা ৭৭ লক্ষ টাকা

পাশাপাশি কর্তব্যে গাফিলতির জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলাও রুজু করা হয়েছে।

করোনা রোগীর চিকিৎসায় গাফিলতি করেছিল হাসপাতাল। স্বাভাবিক ভাবেই প্রিয়জনের মৃত্যু মেনে নিতে পারেননি রোগীর পরিবারের লোকরা। পুলিশ-প্রশাসনের দারস্থ হন তাঁরা। অভিযোগ পেয়ে নড়েচড়ে বসে প্রশাসনও। রবিবার আমেদাবাদের ওই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে কর্তব্যে গাফিলতির জন্য ৭৭ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে স্থানীয় পুরসভা।

‌১৮ জুন রাজস্থান হাসপাতাল নামের একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে এক করোনা রোগীর মৃত্যু হয়। ৭৩ বছর বয়সি  ওই রোগীকে হাসপাতালের এক জায়গা থেকে অন্যত্র স্থানান্তরিত করার সময়েই অবস্থার অবনতি থাকে। অভিযোগ, ২০ মিনিট তাঁকে ভেন্টিলেশনে দেওয়ার আগে অপেক্ষা করতে হয়েছিল। হাসপাতাল কর্মীদের বারবার তাগাদা দিয়েও কাজ হয়নি। এর পরে ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হলে ক্রোধে ফেটে পড়ে রোগীর পরিবার। তাঁরা থানায় যোগাযোগ করে এইফাইআর দায়ের করেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে শো-কজ করা হয় গত রবিবারই।

আমেদাবাদ পুরসভার মুখপাত্র ভাবিন সোলাঙ্কি রবিবার বলেন, “আমরা ৭৭ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছি এই হাসপাতালকে। আটটি বোর্ড এবং ১৮টি ট্রাস্টি পাবে ২ লক্ষ টাকা করে। পুরো টাকাটাই ব্যবহৃত হবে করোনা চিকিৎসায়।”

পাশাপাশি কর্তব্যে গাফিলতির জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলাও রুজু করা হয়েছে।

আরও পড়ুন :করোনা রোগীর খরচের ঊর্ধ্বসীমা কত হবে? বৈঠক চায় বেসরকারি হাসপাতাল

[যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না।]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *