রাসেল, নারাইনকে প্রথম থেকে দলে পাচ্ছে কেকেআর

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ শেষ হচ্ছে ১০ সেপ্টেম্বর। তাই অনেকেই উদ্বেগে ছিলেন আন্দ্রে রাসেল, সুনীল নারাইনদের নিয়ে। প্রথম ম্যাচ থেকে নাইট তারকাদের পাওয়া যাবে কি না, তা নিয়ে ছিল প্রশ্ন। নাইট সূত্র থেকে জানা গেল ১৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে স‌ংযুক্ত আরব আমিরশাহি পৌঁছে যাচ্ছেন রাসেল, নারাইন ও নাইট কোচ ব্রেন্ডন ম্যাকালাম। প্রথম ম্যাচ থেকেই খেলতে দেখা যেতে পারে নাইটদের ক্যারিবিয়ান তারকাদের।

নাইট শিবিরের বিদেশি ক্রিকেটারেরা কেউ ভারতে আসছেন না। নিজেদের দেশ থেকেই উড়ে যাচ্ছেন আমিরশাহিতে। অস্ট্রেলিয়ার প্যাট কামিন্স, ইংল্যান্ডের টম ব্যান্টন সে দেশে পৌঁছে যাবেন ২৫ অগস্টের মধ্যে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে নাইট শিবিরে যোগ দিতে পারেন অইন মর্গ্যান।

শুক্রবারই ২৪ জন ক্রিকেটারের তালিকা ঠিক করে ফেলেছে নাইট শিবির। তাঁদের নিয়েই আবু ধাবির হোটেলে জৈব সুরক্ষা বলয়ে রাখা হবে। তবে দেশ থেকে উড়ে যাওয়ার আগে এক বার করোনা পরীক্ষা হবে প্রত্যেকের। শোনা যাচ্ছে আগামী সপ্তাহের মধ্যেই ঠিক হয়ে যাবে, কবে প্রত্যেকে তাঁদের করোনা পরীক্ষা দেবেন। বিদেশি ক্রিকেটারেরা নিজেদের দেশ থেকেই পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে আসতে পারেন। 

সে দেশে পৌঁছে আরও দু’বার করোনা পরীক্ষা করা হবে দীনেশ কার্তিকদের। বিমানবন্দরে নেমে ও হোটেলে  প্রবেশ করার আগে। মরুদেশে থাকাকালীন পরীক্ষা হবে পাঁচ দিন অন্তর। ক্রিকেটারদের ফল নেগেটিভ এলে তবেই জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করার অনুমতি দেওয়া হবে। ফল নেগেটিভ এলে নিভৃতবাসে থাকার বাধ্যতামূলক কোনও নিয়ম নেই। তবে সচেতনতা বাড়ানোর জন্য সাত দিনের নিভৃতবাসের সিদ্ধান্ত নিতে পারে নাইট শিবির। যদিও তা নির্ভর করছে পরিস্থিতির উপরে। আমিরশাহিতে পৌঁছেই শিবির শুরু করবে কেকেআর। মুম্বইয়ের অ্যাকাডেমিতে নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ারও সুযোগ পাচ্ছেন না কেউ। কারণ, সেখানে করোনা পরিস্থিতি ভয়ঙ্কর আকার নিয়েছে।

আরও পড়ুন : চেন্নাইয়ে মজুত ৭০০ টন বিস্ফোরক!‌ ভয়ে ঘুম উড়েছে সকলের

[যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *