১৩০ কোটি মানুষের জন্য করোনা প্রতিষেধক মজুত করতে ‘হিমঘর’ তৈরির পরিকল্পনা কেন্দ্রের!

করোনা টিকা তৈরির দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে ভারত। এ বছরের শেষেই হয়তো মিলতে পারে করোনা টিকা। সিরাম ইনস্টিটিউট, ভারত বায়োটেকের (Bharat Biotech), জাইডাস ক্যাডিলার (Zydus Cadila) মতো একাধিক নামী ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থার তৈরি করোনা টিকার চূড়ান্ত পর্বের ট্রায়াল চলছে।

মনে করা হচ্ছে, ২০২১ সালের শুরুর দিকেই একে একে প্রায় সব কটি করোনা টিকাই নিজেদের কার্যকারিতা প্রমাণ করে সর্ব সাধারণের ক্ষেত্রে প্রয়োগের ছাড়পত্র পেয়ে যাবে। কিন্তু টিকা বাজারে আসার আগেই তার উপযুক্ত মজুতের ব্যবস্থা করা জরুরি! তা না হলে দেশজুড়ে টিকার সুষম বন্টন, চাহিদা অনুযায়ী তার যোগান দেওয়া সম্ভব নয়।

তাই অদূর ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে দেশজুড়ে করোনা টিকার সুষম বন্টন, চাহিদা অনুযায়ী যোগান দেওয়ার প্রয়োজনে বিশেষ ধরনের হিমঘর বা কোল্ড স্টোরেজ তৈরির বিষয়ে ভাবনা চিন্তা শুরু করেছে কেন্দ্র। এর জন্য প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো তৈরির জন্য ইতিমধ্যেই দুটি বৈঠক হয়ে গিয়েছে।

এই মুহূর্তে প্রায় প্রায় ৯টি করোনা প্রতিষেধকের উপর নজর রাখছে কেন্দ্রের নির্দিষ্ট বিভাগ। দেশের উত্তর পূর্ব প্রান্তের প্রত্যন্ত গ্রামগুলিতে করোনা টিকা পৌঁছে দেওয়াটাই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। প্রতিষেধকের সুষম বন্টনের ক্ষেত্রে এই প্রাথমিক বাধা অতিক্রম করার জন্য ওই সব প্রত্যন্ত এলাকায় বিশেষ ধরনের হিমঘর বা কোল্ড স্টোরেজের ব্যবস্থা রাখতে হবে। আপাতত সে বিষয়েই প্রাথমিক স্তরের পরিকল্পনা চলছে। 

আরও পড়ুন: ২ এবং ৯ অগাস্ট রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন নয়, ঘোষণা রাজ্য সরকারের

[যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না।]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *