২ নভেম্বর থেকে মিলবে অক্সফোর্ডের টিকা, ব্রিটেনের হাসপাতালকে তৈরি থাকার নির্দেশ

দৌড়ে এগিয়ে ছিলই। এ বার আরও সুখবর নিয়ে এল অক্সফোর্ডের কোভিড টিকা। এক সপ্তাহেই ব্রিটেনে শুরু হতে পারে সাধারণ মানুষের উপর প্রয়োগ। তার জন্য লন্ডনের প্রথম সারির একটি হাসপাতালকে তৈরি থাকতে বলা হয়েছে। এমনই খবর জানাচ্ছে একাধিক আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম। যদিও ওই হাসপাতালের নাম বা কত জনকে টিকা দেওয়া হবে, সে সব বিষয় এখনও স্পষ্ট নয়। তবে বিজ্ঞানী-বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা অতিমারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এই টিকাই হতে পারে ‘গেম চেঞ্জার’।

লন্ডনের ওই হাসপাতালকে নির্দিষ্ট তারিখ উল্লেখ করেও যাবতীয় বন্দোবস্ত করে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সংবাদ সংস্থা রয়টার্স এবং ব্রিটেনের প্রথম সারির ট্যাবলয়েড সান পত্রিকার খবর, ২ নভেম্বর, সোমবার থেকেই টিকা দেওয়া শুরু হতে পারে। সে দিন থেকেই ওই হাসপাতালকে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। ওই হাসপাতাল ট্রাস্টের এক আধিকারিককে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে প্রতিবেদনে।

করোনা ভাইরাসের টিকা আবিষ্কারের লড়াইয়ে নেমেছে বিশ্বের বহু দেশ। তার মধ্যে অক্সফোর্ডের সঙ্গে ব্রিটেনের ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা অ্যাস্ট্রাজেনেকার যৌথ ভাবে তৈরি এই কোভিড টিকা (এজেডডি১২২২ বা চ্যাডক্স১এনকোভ-১৯) গোড়া থেকেই দৌড়ে এগিয়ে ছিল। এপ্রিল মাসে অক্সফোর্ডের টিকার লাইসেন্স পায় অ্যাস্ট্রাজেনেকা। তৃতীয় পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল বা পরীক্ষামূলক প্রয়োগের চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে এই টিকা। যদিও এই যাত্রাপথে এসেছে প্রতিবন্ধকতাও। গত মাসেই এক স্বেচ্ছাসেবক গ্রহীতার অজানা রোগ দেখা দেওয়ায় সাময়িক ভাবে স্থগিত হয়ে যায় ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল। তবে কয়েক দিনের মধ্যে ফের চালুও হয়েছে। অ্যাস্ট্রাজেনেকার তরফে আগেই জানানো হয়েছিল, এই টিকা এক বছর পর্যন্ত সুরক্ষা দেবে। 

টিকার কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত একাধিক সূত্রে খবর, এখন চূড়ান্ত অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে অক্সফোর্ডের এই টিকা। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, সরকার যে অনুমোদন দিতে চলেছে, তেমন ইঙ্গিত পাওয়ার পরেই তৈরি থাকতে বলা হয়েছে ওই হাসপাতালকে।

আরও পড়ুন :কোনও বিরূপ প্রভাব নেই! ভারতের করোনার টিকা Covaxin-এর ট্রায়ালে মিলল অভূতপূর্ব সাফল্য!

[যদি প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার কমেন্ট ও লাইক করতে ভুলবেন না]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *